চলে গেলেন জননন্দিত জনপ্রতিনিধি কাউন্সিলর নীরু

niru janazaসুরমা টাইমস ডেস্কঃ চলে গেলেন ৭ নম্বর ওয়ার্ডের জননন্দিত জনপ্রতিনিধি বর্তমান কাউন্সিলর নজিবুর রহমান নীরু। মঙ্গলবার সকাল ৬ টা ১৫ মিনিটে নগরীর একটি হাসপাতালে ৬৭ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন তিনি (ইন্না লিলøাহি … রাজেউন)। নজিবুর রহমান নীরু আমৃত্যু জনগনের সেবা করে গেছেন। তার মৃত্যুতে তার ওয়ার্ডসহ সিলেট সিটি কর্পোরেশনের জনপ্রতিনিধি ও কর্মকর্তা কর্মচারীসহ সর্ব¯Íরের মানুষের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। তার মৃত্যুর খবর পেয়ে বনকলাপাড়াস্থ (৭৪ নূরানী) বাড়িতে ভীড় জমান সিলেটের বিভিন্ন অঙ্গনের মানুষ।
niru janaza2নজিবুর রহমান নীরু একবার টুলটিকর ইউনিয়নের মেম্বার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে তিনি তিনবার ওয়ার্ড কমিশনার নির্বাচিত হন। সর্বশেষ সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে চতুর্থবারের মতো ৭ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচিত হন এই বর্ষীয়ান জনপ্রতিনিধি। সম্প্রতি তিনি দূরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন।
মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, তিন ছেলেসহ অসংখ্য আত্বীয় স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। বাদ আসর তার বাড়ির প্রাঙ্গনে নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। পরে পারিবারিক গোরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।
মেয়রের শোক
৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নজিবুর রহমান নীরুর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। এক শোকবার্তায় তিনি বলেন, নজিবুর রহমান নীরু ছিলেন একজন নিবেদিতপ্রাণ ব্যক্তিত্ব। তিনি আমৃত্যু জনগনের কল্যাণে কাজ করে গেছেন। তাঁর শূন্যতা অপূরনীয়। মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তোপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।
কাউন্সিলরদের শোক
কাউন্সিলর নজিবুর রহমান নীরুর মৃত্যুর তার সহকর্মী কাউন্সিলরবৃন্দ বনকলাপাড়াস্থ বাসায় ছুটে যান। তারা পরিবারের সদস্যদের সান্তনা দেন। পরে সিটি কর্পোরেশনের ৩৫ জন সম্মানিত কাউন্সিলরবৃন্দ শোকপ্রকাশ করে বিবৃতি দেন। তারা শোকসন্তোপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। শোকজ্ঞাপনকারীরা হলেন ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সৈয়দ তৌফিকুল হাদী, ২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রাজিক মিয়া, ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এস এম আবজাদ হোসেন, ৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ, ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ফরহাদ চৌধুরী শামীম, ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো: ইলিয়াছুর রহমান, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মখলিছুর রহমান কামরান, ১০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এডভোকেট ছালেহ আহমদ চৌধুরী, ১১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রকিবুল ইসলাম ঝলক, ১২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সিকন্দর আলী, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শান্তনু দত্ত সন্তু, ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম মুনিম, ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ছয়ফুল আমিন বাকের, ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুল মুহিত জাবেদ, ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর দেলওয়ার হোসেন সজিব, ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এ বি এম জিলøুর রহমান উজ্জল, ১৯ নম্বর ওয়ার্ডেও কাউন্সিরর দিনার খান হাসু, ২০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ, ২১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুর রকিব তুহিন, ২২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সৈয়দ মিসবাহ উদ্দিন, ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো: মুসতাক আহমদ, ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সোহেল আহমদ রিপন, ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তাকবির ইসলাম পিন্টু, ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তৌফিক বকস, ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো: আব্দুল জলিল নজরুল, সংরক্ষিত ১ আসনের কাউন্সিলর কোহিনুর ইয়াসমিন ঝর্ণা, সংরক্ষিত ২ আসনের কাউন্সিলর জাহানারা খানম মিলন, সংরক্ষিত ৩ আসনের কাউন্সিলর রেবেকা বেগম, সংরক্ষিত ৪ আসনের কাউন্সিলর আমেনা বেগম রুমি, সংরক্ষিত ৫ আসনের কাউন্সিলর দিবা রাণী দে, সংরক্ষিত ৬ আসনের কাউন্সিলর শাহানারা বেগম, সংরক্ষিত ৭ আসনের কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীন, সংরক্ষিত ৮ আসনের কাউন্সিলর সালেহা কবীর শেপী, সংরক্ষিত ৯ আসনের কাউন্সিলর এডভোকেট রোকসানা বেগম শাহনাজ।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close