উইন্ডোজ ১০ আনলো মাইক্রোসফট

Windows 10সুরমা টাইমস রিপোর্টঃ উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের নতুন সংস্করণ ‘উইন্ডোজ ১০’-এর ঘোষণা দিয়েছে বিশ্বের বৃহৎ​ সফটওয়্যার নির্মাতা মাইক্রোসফট। ৩০ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের সানফ্রান্সিসকোতে এক অনুষ্ঠানে উইন্ডোজ ৮-এর পরবর্তী সংস্করণ হিসেবে উইন্ডোজ ১০-এর ঘোষণা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।
উইন্ডোজ ১০ সংস্করণটি মোবাইল ফোন, ট্যাবলেট, পিসি, এক্সবক্স গেম কনসোলসহ বিভিন্ন ধরনের পণ্যেই চলবে। একটি একক অ্যাপ্লিকেশন স্টোর থেকে উইন্ডোজের বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন কিনতে পাওয়া যাবে। অনেকেই ধারণা করছেন, মোবাইল ফোনে উইন্ডোজ বিনা মূল্যে আপগ্রেড করে নেওয়ার সুযোগ দিতে পারে মাইক্রোসফট। প্রসঙ্গত, উইন্ডোজ থেকে প্রচুর মুনাফা করে মাইক্রোসফট।
সানফ্রান্সিসকোর অনুষ্ঠানে মাইক্রোসফটের নির্বাহী জো বেলফিউরি মঞ্চে উইন্ডোজ সফটওয়্যারটির প্রদর্শন করেন। তিনি ট্যাবলেটের জন্য টাচনিয়ন্ত্রিত একটি মোড এবং মাউস ও কীবোর্ড দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করা যায় এই দুটি মোড দেখান। পণ্যভেদে এই দুটি মোড বেছে নিতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। অবশ্য কবে নাগাদ এই সফটওয়্যারটি বাজারে আসবে, সে বিষয়ে বিস্তারিত জানাননি টেরি মেয়ারসন।
বাজার বিশ্লেষকেরা বলেছেন, আগামী বছর নাগাদ এটি বাজারে আসতে পারে। বুধবার থেকে মাইক্রোসফটের ওয়েবসাইটে উইন্ডোজ ১০-এর প্রিভিউ সংস্করণটি পাওয়া যাবে। উইন্ডোজ ১০-এ ফিরে এসেছে স্টার্ট মেনু। এতে মাল্টিপল ডেস্কটপ, টাস্ক ভিউয়ের মতো আরও বেশ কিছু নতুন ফিচার যুক্ত হয়েছে।
বাজার বিশ্লেষকেরা ধারণা করছিলেন, এবারে উইন্ডোজ ৯ আনতে পারে মাইক্রোসফট। কিন্তু উইন্ডোজ ৯ না এনে মাইক্রোসফট সরাসরি ‘উইন্ডোজ ১০’-এর ঘোষণা দিলো। মাইক্রোসফটের অপারেটিং সিস্টেম বিভাগের প্রধান টেরি মেয়ারসন জানিয়েছেন, ‘উইন্ডোজ ১০ হবে আমাদের অন্যতম এন্টারপ্রাইজ প্ল্যাটফর্ম।’
বর্তমানে বিশ্বে ১৫০ কোটিরও বেশি পণ্যে উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহৃত হচ্ছে। অবশ্য দুই বছর আগে বাজারে ছাড়া উইন্ডোজ ৮ অপারেটিং সিস্টেমটি আশানুরূপ জনপ্রিয় হয়নি। বাজার গবেষণাপ্রতিষ্ঠান ফরেস্টারের তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত মাত্র ২০ শতাংশ উইন্ডোজ ব্যবহারকারী উইন্ডোজ ৮ ব্যবহার করছেন।
টেরি মেয়ারসন বলেন, উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেম তৈরির প্রকল্পটি অভ্যন্তরীণভাবে দীর্ঘদিন ধরে থ্রেসহোল্ড নামে পরিচিত ছিল। এটি মাইক্রোসফটের নতুন ধরনের একটি পদ্ধতি, যাতে মোবাইল ডিভাইসও সমর্থন করবে। উইন্ডোজ ১০ নামটির অর্থ হচ্ছে ‘লাফ’। এটি এক্সবক্স থেকে পিসি, ফোন, ট্যাবলেট এমনকি ক্ষুদ্র স্মার্টপণ্যগুলোতেও চলবে।’
বাজার গবেষকেরা বলছেন, উইন্ডোজকে জনপ্রিয় করতে এখন রীতিমতো হিমশিম খেতে হচ্ছে মাইক্রোসফটকে। অ্যাপল আর গুগলের কল্যাণে ব্যবহারকারীদের অন-স্ক্রিন জীবনে একচ্ছত্র আধিপত্য এখন আর মাইক্রোসফটের নেই। গার্টনারের তথ্য অনুযায়ী, এক দশক আগে ব্যক্তিগত কম্পিউটার থেকে ভারচুয়াল জগতে যে একচ্ছত্র আধিপত্য ধরে রেখেছিল মাইক্রোসফট এখন মাত্র ১৪ শতাংশ পণ্যে শুধু উইন্ডোজ ব্যবহৃত হচ্ছে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close