একা হয়ে পড়েছেন ইমরান এইচ সরকার!

Imran-H-Sarkarসুরমা টাইমস ডেস্কঃ এক সময় তাঁর কথায় দেশের স্কুল-কলেজগুলোতে জাতীয় পতাকা উঠতো-নামতো।তাঁর ডাকেই হাজার হাজার মানুষ শাহবাগের মোড়ে জড়ো হয়েছিলেন। প্রতিদিনই স্কুল কলেজ থেকে শত শত ছাত্র-ছাত্রী দল বেধে ছুটে যেতো শাহবাগের মোড়ে।শুধু তাই নয় ঢাকার বাইরে যেখানেই যেতেন তাকে দেখতে শত শত লোক ভির জামাতো।সে দৃশ্যত এখন অতীত।গণজাগরণ মঞ্চের সেই মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার দৃশ্যত এখন একা হয়ে পড়েছেন।তাঁর পায়ের নিচে মাটি সরে গেছে।তাকে নিয়ে এখন নানা বিতর্ক।তার বিরুদ্ধে এখন নানা অভিযোগ সহযোদ্ধাদের। নৈতিক অবক্ষয়ের অভিযোগতো রয়েছেই।
অগণতান্ত্রিক আচরণ ও স্বেচ্ছাচারিতার কারণে তাঁর বিরুদ্ধে ফুসে উঠছে মঞ্চের কর্মীরা। শুধু তাই নয়, গণজাগরণ মঞ্চের অন্যতম সংগঠক বামপন্থী পাঁচ ছাত্র সংগঠন ইমরান এইচ সরকারকে আল্টিমেটাম দিয়েছে। সংগঠনগুলোর নেতারা বলেছেন, ‘তিনি যদি তার স্বভাব-চরিত্র পরিবর্তন না করেন তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’ এই আল্টিমেটাম দিয়ে মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করেছে তার সহযোগীরা।বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের চাকরি ছেড়ে দেয়ার পর তার আয়-উপার্জন নিয়েও নানা কথা চালু আছে।
গণজাগরণ মঞ্চ সূত্রে জানা গেছে, মঞ্চের কোনো কর্মীই এখন চান না ইমরান এইচ সরকার আহবায়ক পদে থাকুক। সহযোদ্ধারা তাকে বাদ দিয়েই চালিয়ে নিতে চায় গণজাগরণ মঞ্চটি। এনিয়ে তাদের মধ্যে একাধিকবার বৈঠকও হয়েছে। বৈঠকে সবাই একই দাবি করেছে, ইমরান এইচ সরকারকে বিদায় নিতে হবে। কারণ তার করণে মঞ্চ অনেক বিতর্কের সম্মুখীন হয়েছে। এই বিতর্ক যেন আর বেশি দূর না গড়ায় সেজন্য এখনই পদক্ষেপ নিতে চায় তারা।
মঙ্গলবার মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলনেই ইমরান এইচ সরকারকে নিয়ে বিরোধ স্পষ্ট হয়ে উঠে। সংবাদ সম্মেলনে যারা উপস্থিত ছিলেন তারা সবাই গণজাগরণ মঞ্চের একনিষ্ঠ কর্মী। তারাই এখন আর চান না ইমরান এইচ সরকার এতো অভিযোগ মাথায় নিয়ে সামনে এগিয়ে যাক। তাদের দাবি, আর্থিক দুর্নীতি, অগণতান্ত্রিক আচারণসহ বিভিন্ন অপকর্মে জড়িয়ে পড়েছেন ইমরান এইচ সরকার। ফলে তার এখন এই মঞ্চ ছেড়ে যাওয়াই উচিত।
জানতে চাইলে ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি বাপ্পাদিত্য বসু বলেন, ‘ইমরানের বেশকিছু দোষ রয়েছে। কর্মসূচি কিংবা যেকোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণে ইমরান একাই একশ’। -তিনি অন্যকারো সঙ্গে আলাপ-আলোচনার প্রয়োজন মনে করেন না। মঞ্চের মুখপাত্রের জবাবদিহিতা না থাকা এবং সার্বজনীন নেতৃত্বধানে ব্যর্থতাই সবকিছুর জন্য দায়ী।’
তবে গণজাগরণ মঞ্চের ব্যাপারে সরকার তার অবস্থান পাল্টেছে-দাবি করেছেন ডা. ইমরান এইচ সরকার বলেছেন, ‘সরকারের নৈতিক অবস্থানের পরিবর্তন ও বিচারের দীর্ঘসূত্রিতার কারণে মঞ্চের সঙ্গে বিরোধ শুরু হয়েছে। এজন্যই বিভিন্ন বাধার মুখে পড়ছে মঞ্চ।’

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close