কাল বৈশাখী ঝড়ে সিলেট নগরীর অনেক এলাকা বিদ্যুৎহীন

syr-power-47061ডেস্ক রিপোর্টঃ কালবৈশাখী ঝড় ও বজ্রপাতে সিলেট নগরীর বিদুৎ ব্যবস্থায় বিঘ্ন দেখা দিয়েছে। গতকাল শনিবার ভোর থেকে রাত পর্যন্ত নগরীর আম্বরখানা, দরগা গেইট, দর্শন দেউড়ী, বনকলা পাড়া, এয়ারপোর্ট রোড, মজুমদারী, বারুতখানা, হাওয়াপাড়া খাসদবির, পীর মহল্লা, বড় বাজার, সুবিদবাজার, পাঠানটুলা ও মদীনা মার্কেট এলাকা বিদ্যুৎহীন ছিল। এছাড়া নগরীর জিন্দাবাজার, বন্দরবাজার, দাড়িয়াপাড়া, উপশহর, লামাবাজার, শিবগঞ্জ ও টিলাগড়সহ নগরীর অধিকাংশ এলাকায় বিকেল পর্যন্ত বিদ্যুৎ ছিল না। অবশ্য বিকেলে কাজ শেষ হওয়ায় কিছু এলাকায় সংযোগ স্বাভাবিক হয়েছে। নগরী ছাড়া দক্ষিণ সুরমার উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়ও বিদ্যুৎ শুক্রবার রাত থেকেই বিদ্যুৎ নেই। বিদ্যুৎ না থাকায় রান্না, গোসলসহ নিত্য প্রয়োজনীয় কাজ করতে পারেনি লোকজন।
নগরীর দর্শন দেউড়ী এলাকার বাসিন্দা সাংবাদিক আব্দুল হামিদ মানিক জানান, শনিবার ভোর থেকেই এলাকায় বিদ্যুৎ নেই। বিদ্যুৎ বিভাগে যোগাযোগ করলে তারা খুব দ্রুত সংযোগ দেয়ার কথা বললেও সংযোগ দেয়নি। ফলে প্রয়োজনীয় কাজে দূর্ভোগ পোহাতে হয়েছে।
দরগা গেইট এলাকার বাসিন্দা ও ছাতক ঝিগলী কলেজের সমাজকর্মের প্রফেসর মো: আয়াত উল্লাহ জানান, গতকাল শনিবার পুরো দিনই বিদ্যুৎ ছিল না। পানি না থাকায় প্রয়োজনীয় কাজ সারতে দূর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। গ্যাস না থাকার ফলে বাসায় রান্নাও হয়নি। সিলাম পশ্চিম পাড়ার বাসিন্দা হাজী এম আহমদ আলী জানান, কাল বৈশাখী ঝড়ে সিলাম ইউনিয়নসহ পাশর্^বর্তী এলাকায় শুক্রবার রাত থেকেই বিদ্যুৎ নেই। ফলে লোকজনকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
সিলেট বিদ্যুৎ বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী রতন কুমার সিংহ জানান, বজ্রপাতের কারণে বিদ্যুতের তারে সমস্যা দেখা দিয়েছে। ৪টি সেকশনে বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তারা কাজ করছেন। কাজ সম্পন্ন হলেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে। তিনি জানান, আম্বরখানা থেকে মদীনা মার্কেট পর্যন্ত লাইনে এখনো কাজ চলছে। তাই ওই সব এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে দেরী হচ্ছে। নগরীর অন্যসব এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ দেযা হয়েছে।
এদিকে শুক্রবার রাত ও শনিবার সকালে ঝড়ের তান্ডবে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে। এতে নগরীর নয়া সড়ক এলাকাস্থ কিশোরী মোহন উচ্চবিদ্যালয়ের দক্ষিণ পাশের একটি গাছ উপড়ে পড়ে একটি ঘরের উপর। একই এলাকার খ্রিস্টান মিশনের গাছ উপড়ে পড়ে পাশ^র্তী ঘরের উপর। এছাড়া নগরীর শাহী ঈদগাহ এলাকায় ৩৩ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ লাইনের উপর গাছ পড়ে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়েছে। নগরীর মিরাবাজার এলাকায় একটি বিলবোর্ড উপড়ে পড়েছে বলে জানা গেছে। সিলেট আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ জানান, মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে সিলেটে কালবৈশাখি ঝড়ের সাথে ব্যাপক বৃষ্টিপাত ও বজ্রপাত হয়েছে। এই অবস্থা আরো কয়েকদিন চলতে পারে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close