চুনারুঘাটে এক,দুই ও তিন নং ইউপিতে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) পরীক্ষা শুরু

20151122_124040এম এস জিলানী আখনজী, চুনারুঘাট থেকে ॥ গতকাল থেকে শুরু হয়েছে সারাদেশের ন্যায় রোববার সকাল ১১টায় চুনারুঘাটে ১নং গাজীপুর, ২নং আহম্মদাবাদ ও ৩নং দেওরগাছ ইউপিসহ অন্যান্য ইউ,পিতে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) পরীক্ষা। প্রথম দিনে অনুষ্ঠিত হয়েছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ীতে ইংরেজী বিষয়ের উপর পরীক্ষা। তবে সোমবার সকাল সন্ধ্যা হরতাল ডাকার কারনে পঞ্চম শ্রেণির খুদে পরীক্ষার্থীদের প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। স্থগিত হওয়া বাংলা পরীক্ষা আগামী ৩০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। এ বছর এই পরীক্ষায় সারাদেশে মোট পরীক্ষার্থী সংখ্যা ৩২ লাখ ৫৪ হাজার ৫শ ১৪ জন। এর মধ্যে প্রাথমিক সমাপনীতে ২৯ লাখ ৪৯ হাজার ৬৩ জন ও ইবতেদায়ী সমাপনীতে ৩ লাখ ৫ হাজার ৪শ ৫১ জন। এবার চুনারুঘাট উপজেলায় প্রায় ৮ হাজার শিক্ষার্থী ২১টি কেন্দ্রে পরীক্ষা দিচ্ছে। তাদের মধ্যে সরকারি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৭ হাজার ৪শ ৪জন এবং ইবতেদায়ী মাদ্রাসার ৫শ ৩জন পরীক্ষা দিচ্ছে। তনমধ্যে চুনারুঘাটে ১নং গাজীপুর ইউ,পিতে জারুলিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হলের সংখ্যা ১৩টি, ব্রাক, প্রথমিক ও ইবতেদায়ী মিলে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৭শ ৫৩ জন, ছাত্র/ছাত্রী অনুপস্থিত সংখ্যা ৪৩ জন, উপস্থিত সংখ্যা ৭শ ১০ জন। এ দিকে ২নং আহম্মদাবাদ ইউ,পিতে শুকদেবপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হলের সংখ্যা ১৩টি, ব্রাকসহ প্রাথমিক স্থরের বিদ্যালয়ের সংখ্যা ২২টি ও ইবতেদায়ী ৩টি। মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৫শ ৭২ জন, ছাত্র/ছাত্রী অনুপস্থিত সংখ্যা ৩২ জন, উপস্থিত সংখ্যা ৫শ ৪০ জন ও ৩নং দেওরগাছ ইউ,পিতে কাচুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হলের সংখ্যা ৫টি, ব্রাকসহ প্রাথমিক স্থরের বিদ্যালয়ের সংখ্যা ৮টি ও ইবতেদায়ী ১টি। মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২শ ৭জন, ছাত্র/ছাত্রী অনুপস্থিত সংখ্যা ১০ জন, উপস্থিত সংখ্যা ১শ ৯৭ জন। ৩টি ইউ,পিতে কেন্দ্র সচিব ছিলেন, ১নং গাজীপুর কেন্দ্রের শান্ত কুমার সিংহ, ২নং আহম্মদাবাদ কেন্দ্রের মো: এনামুল হক আরজু ও ৩নং দেওরগাছ কেন্দ্রের মো: জালাল উদ্দিন। হল সুপার রানা প্রসাদ গোষ, বেলাল আহম্মদ ও ফখরুল ইসলাম। সহকারী হল সুপার নিতিশ নাত, আ: জাহির ও ফজলুল হক কামাল কেন্দ্রেতে ছিলেন। এ ছাড়াও জানা যায়, কেন্দ্রেতে ছিলেন, ৩নং কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা বারীন্দ্র চন্দ্র রায় ও ১ এর মো: মহসিন মিয়া। প্রতিটি পরীক্ষা বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১:৩০ মিনিট পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। তবে পরীক্ষার ঘন্টা বাজালেও প্রতিবন্ধী শিশুদের বেলায় বাড়তি ২০ মিনিট সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। এবার পরীক্ষায় ছাত্রের চেয়ে ছাত্রীর সংখ্যা বেশি দেখা যাচ্ছে। মোট ৬টি বিষয়ে ১০০ করে মোট ৬০০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। কোন প্রকার দুর্ঘটনা ঘটে নি। উল্লেখ্য যে, ২নং আহম্মদাবাদ শুকদেবপুর কেন্দ্রে পরীক্ষা চলাকালিন সময় হল পরিদর্শন করেন, বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবেদ হাসনাত সনজু চৌধুরী ও বিশিষ্ট শিক্ষাণুরাগী সদস্য আলহাজ্ব আ: রহমান আজাদ প্রমূক।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close