মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানী জালেমের সাথে কখনও আপোস করেননি : বামসাএ

Maolana Vashaniস্বাধীনতার স্থপতি স্বপ্নদ্রোষ্ঠা মজলুম জননেতা মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর ৩৯তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আজ সকালে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক এসোসিয়েশন (বামসাএ) এর কেন্দ্রীয় কার্যালয় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। বামসাএ-এর চেয়ারম্যান মুহাম্মদ সাখাওয়াৎ হোসেন ইবনে মঈন চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন সিনিয়ার ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাড. আবু বকর ছিদ্দিক বাবুল খান, মুহাম্মদ হারুন অর রশিদ সর্দার, মুহাম্মদ শহীদুল ইসলাম শহীদ, খন্দকার মাসুদ-উজ-জামান, সরকার মিজানুর রহমান, মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, মেজবাহ উদ্দিন, ফাহিম আলনূর, এস.এম বদরুল ইসলাম, মুহাম্মদ লুৎফর রহমান, মাইদুল ইসলাম মুকুল, আরিফ জোয়ারদার, আব্দুল গফুর প্রমুখ। বক্তরা বলেন সরকার নিজেও যেমন রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দানবের মত জবর দখল করে করে গনতন্ত্রকামী রাজনৈতিক নেতা কর্মীদের আপরাধী ছাড়া জাতীয় জাতীয় প্রেসক্লাব দখলদার কতৃক সকল ঐতিহ্য ভূলন্ঠিত করেছে। এ্যাটর্নি জেনারেল চেম্বার জজকে দিয়ে জোর পূর্বক অবৈধ আদেশের স্থগীত এনে মিষ্টি ভোজ করেন। তারা আরো বলেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) কার্যালয় জবরদখলকারী শাসকদের মতই দখল করে নেয়। বিএফইউজে ও ডিইউজে নির্বাচিত প্রতিনিধি সহ ৪৩জনকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সদস্যপদ খারিজ করে অবৈধ জবরদখলকারীরা । তারা বলেন যেভাবে মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানীর ইত্তেফাক এর মালিকানা পরিবর্তন করেছিল হক কথা বন্ধ করে ছিল। এখন সেই ভাবেই গনগ্রেফতার করে রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের অপরাধী হিসেবে চিহ্নিত করার চক্রান্ত চলছে। মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানী বেঁচে থাকলে ক্ষমতা কুক্ষিকত করে রাখতে গনতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো ধ্বংস ও বিচার বিভাগকে বিতর্কিত করার ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতেন। বামসাএ-এর চেয়ারম্যান বলেন আওয়ামীলীগ ও তার নেতৃতাধীন শরীক দলগুলো সব সময় জনগন ও গণমাধ্যম ভীতিতে ভূগে। তারা বিচার বিচার বিভাগকে নিয়ন্ত্রন করে। তাই হয়তো প্রধান বিচারপতি এস.কে. সিনহা বলেছেন এখন আর টেলিফোন করে রায় বদলানো যাবে না। তিনি বলেন প্রধান বিচারপতির দিকে সাংবাদিক সমাজ চেয়ে আছেন জাতীয় প্রেসক্লাব, বিএফইউজে ও ডিইউজে নির্বাচিত প্রতিনিধিদের হাতে তাদের দায়িত্ব তুলে দিয়ে নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন কমিটি গঠনের পরিবেশ সৃষ্টি করে দেওয়া পাশাপাশি জবরদখলকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তির নির্দেশনা দিয়ে ভবিষতে গনতান্ত্রিক পদ্ধতিতে প্রতিনিধি নির্বাচনের পথ কেউ যাতে পদদলিত করতে সাহস না পায়। তিনি বলেন আমরা আশা করি প্রধান বিচারপতি আমাদেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান সাংবাদিক সমাজের বরেণ্য নেতা শওকত মাহমুদ সহ আটক সকল সাংবাদিক রাজনৈতিকদের মুক্তির জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিবেন। সাংবাদিক সম্পত্তি সাগর রুনী সহ সকল সাংবাদিকের হত্যাকারীদের গ্রেফতারের নির্দেশ দিবেন। সাংবাদিকদের পেশাগত দায়িত্বে বাধাদানকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দিবেন । তিনি রাজনৈতিক প্রতিপক্ষদের চরিত্রহনন করে দেশকে নেতৃত্বশূন্য করার চক্রান্ত প্রতিহত করার আহবান জানান। তিনি বলেন তানাহলে জাতী বুঝবে এখনও টেলিফোনের নির্দেশনায় রায় বদল হচ্ছে । তিনি আরো বলেন মজলুম জনগনের মুক্তি আনতে হলে গোলটেবিল নয় রাজপথ কেবল স্বৈরশাসকের নির্যাতন নিপিড়ন থেকে মুক্তি দিতে পারে। তিনি আরো বলেন মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানী ৩৯তম মৃত্যুবার্ষীকিতে শপথ নিতে হবে মজলুমের মুক্তির জন্যে আদর্শিক মতপার্থক্যতা ভূলে গিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে জালেমের পতন আন্দোলন বেগবান করে মজলুমের বিজয় সু-নিশ্চিত করতে হবে। সভা শেষে মজলুম জননেতা মওলানা আব্দুল হামিদ খাঁন ভাসানীর আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মহান আল্লাহর দরবারে দোয়া করা হয়।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close