তুরস্কে এরদোগানের একে পার্টির অভূতপূর্ব জয়

124110_1সুরমা টাইমস ডেস্কঃ সব জনমতকে ভুল প্রমাণ করে তুরস্কে রবিবার অনুষ্ঠিত পার্লামেন্টের নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েব এরদোগানের নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (একে) পার্টি নিরঙ্কুশ বিজয় অর্জন করেছে। সর্বশেষ প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী পার্লামেন্টের ৫৫০টি আসনের মধ্যে ইসলাম ঘেঁষা দলটি পেয়েছে ৩১৬টি আসন। এককভাবে সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজন ২৭৬টি আসন।
নির্বাচনে ৮৭.২৬ শতাংশ ভোট পড়েছে। একে পার্টি ভোট পেয়েছে প্রায় ৫০ শতাংশ বেশি। পার্লামেন্টে প্রতিনিধিত্বকারী অপর তিন দলের সম্মিলিত ভোটের চেয়েও বেশি ভোট তারা পেয়েছে।তুরস্কে গত পাঁচ মাসের মধ্যে এটি দ্বিতীয় নির্বাচন। গত জুনে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে একেপি পেয়েছিল ২৫৮টি আসন (৪০.৮ ভাগ ভোট)। এককভাবে সরকার গঠনের মতো আসন না পাওয়ায় কোয়ালিশন সরকার গঠনের উদ্যোগ নেয়া হয়। কিন্তু তাতে সফলতা না আসায় প্রেসিডেন্ট মধ্যবর্তী নির্বাচন দেন। গতকালের নির্বাচনে ১৬টি দল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে। গত রাতে প্রাপ্ত সর্বশেষ খবর অনুযায়ী নির্বাচনে প্রদত্ত ভোটের মধ্যে ৮১.৩৭ শতাংশ ভোট গণনা করা হয়েছে।
দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মধ্য বামপন্থী রিপাবলিকান পিপলস পার্টি (সিএইচপি)। দলটি ২৫.৩ শতাংশ ভোট পেয়ে ১৩৩টি আসনে বিজয়ী হয়েছে। কট্টর ডানপন্থী ন্যাশনালিস্ট অ্যাকশন পার্টি (এমএইচপি) ৪২টি আসন পেয়েছে। কুর্দিপন্থী পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (এইচডিপি) ৫৯টি আসন পেয়েছে। তবে তাদের ভোট অনেক কমে গেছে।
একে পার্টির প্রধান এবং প্রধানমন্ত্রী আহমদ ডাভুটুগ্লু এটাকে গণতন্ত্রের জয় হিসেবে অভিহিত করেছেন। তিনি সংবিধান সংশোধন করবেন বলেও জানিয়েছেন। এতে প্রেসিডেন্টকে আরো বেশি ক্ষমতা দেয়া হবে।
এরদোগান প্রতিষ্ঠিত একে পার্টি ২০০৩ সাল থেকে দেশটি শাসন করে আসছে। আর এরদোগান সেই সময় থেকে প্রায় ১০ বছর প্রধানমন্ত্রী এবং বর্তমানে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেশ শাসন করছেন। তার নেতৃত্বে তুরস্ক এখন বিশ্বের সমৃদ্ধশালী দেশের একটিতে পরিণত হয়েছে। সূত্র: আলজাজিরা

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close