গোলাপগঞ্জে পৌর মেয়রের প্রশ্ন শুনে হেসে উঠলেন সবাই!

2-300x156নোমান মাহফুজ: ভোটার তালিকা হালানাগাদ কায্যক্রম নিয়ে মতবিনিময় সভায় দীর্ঘ প্রায় ৭বছর পর তিনি উপজেলা পরিষদে এলেন। পৌরসভার গত নির্বাচনের দিন শেষ এসেছিলেন বলে জানাযায়।এরপর মেয়র হয়ে প্রটোকল মেনে চলা এই মেয়র তাকে প্রধান অতিথি না করলে সরকারী বেসরকারী অনুষ্ঠান এড়িয়ে যেতেন। আজ সেই তিনি ছিলেন দর্শক সারীতে । বিমর্ষ বদনে দর্শক সারিতে নীরব বসে থাকা মেয়রকে ঘিরে কারো কোন আগ্রহ নেই, নেই কোন প্রটোকলের বালাই।অনুষ্ঠানে প্রশ্নের সুযোগ পেয়ে তিনি বললেন , ‘আমি দুই বারের নির্বাচিত মেয়র, আমাকে প্রশাসন সাহায্য করছেনা তাই আমি (নির্বাচনে ) অনেক পিছিয়ে পড়েছি। প্রশাসনের ক র্মকর্তা আমার বিরুদ্ধে কাজ করছেন। আমি এবিষয়ে প্রতিকার চাই। ’ নির্বাচন কমিশনার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ( অব. ) মোঃ জাবেদ আলীর নিকট গোলাপগঞ্জ পৌরসভার মেয়র জাকারিয়া আহমদ পাপলুর এধরনের প্রশ্ন শুনে হু হু করে হেসে উঠলেন উপস্থিত সবাই।গোলাপগঞ্জে ছবিসহ ভোটার তালিকা হলনাগাদ কার্যক্রম ২০১৫ এর মতবিনিময় সভায় আজ ( বুধবার) এঘটনা ঘটে।বিকাল ৪টায় শুরু হয়ে প্রায় সাড়ে ৫টা পযন্ত এ সভা চলে। কমিশনার প্রশ্নের উত্তরে হাসতে হাসতে বলেন, জনপ্রতিনিধির অতীত কাজ দেখে ভোটাররা তাদের সিদ্ধান্ত নেবে। এসব বিষয় নির্বাচন কমিশনের উপর চাপানো ঠিক নয়। কারো সাথে ব্যাক্তিগত সমস্যা থাকলে তা ব্যাক্তিগতভাবে সমাধান করা উচিৎ। এদিকে
উপজেলা অডিটরিয়ামে প্রধান অথিতির বক্তব্যে নির্বাচন কমিশনার ভোটার তালিকা হালানাগাদ কার্যক্রম পরিচালনায় অধিক সতর্কতা অবলম্বন করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানান কোনোভাবে যাতে বাংলাদেশের নাগরিক পরিচয় দিয়ে অন্য দেশের কোন জঙ্গি বা রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করে বাংলাদেশের ভোটার তালিকা হালনাগাদে অন্তর্ভূক্ত হতে না পারে সেদিকে সংশ্লিষ্টদের সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। নির্বাচন কমিশনার বলেন যদি বাংলাদেশের কোন নাগরিক বিদেশে থেকেও বাংলাদেশের যেকোন নির্বাচনে অংশ নিতে চান তাহলে তিনি নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিয়ে অবগত করলে অবশ্যই নির্বাচন কমিশন তাকে ভোটধিকার প্রয়োগের সম্পূর্ণ সুযোগ করে দিতে প্রস্তুত। তিনি আরও বলেন ভোট একটি আমানত , এই আমানতের খেয়ানত কোনোভাবে করা যাবে না।উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আশরাফুল আলম খানের সভাপতিত্বে ও উপজেলা মসজিদের ইমাম মোঃ আব্দুল মতিনের কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয়। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন – জেলা আঞ্চলিক নির্বাচন কমিশনার আজিজুল ইসলাম, উপজেলা চেয়ারম্যান হাফিজ নাজমুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রফিক আহমদ, সহ- সভাপতি ডা. আব্দুর রহমান, গোলাপগঞ্জ মডেল থানা অফিসার ইনচার্য একেএম ফজলুল হক শিবলী পৌর মেয়র জাকারিয়া আহমদ পাপলু, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার অভিজিৎ কুমার পাল, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল মোত্তাকিম, উপজেলা মুক্তিযুদ্ধা কমান্ডার আলহাজ্ব শফিকুর রহমান, ফুলবাড়ী ইউপির চেয়ারম্যান এডভোকেট মামুন আহমদ রিপন, , উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ এমদাদুল হক , ঢাকাদক্ষিণ ইউপি আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা জামাল মিয়া, সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি গোলাপগঞ্জ অঞ্চলের পরিচালক আব্দুল আহাদ, সাংবাদিক মাহফুজ আহমদ চৌধুরী ,
গোলাপগঞ্জ সাংবাদিক কল্যাণ সমিতির সভাপতি ও সাপ্তাহিক সিলেটের তথ্য নির্বাহী সম্পাদক মাহবুবুর রহমান চৌধুরী , সাধারন সম্পাদক নোমান মাহফুজ , সাংবাদিক ছামিন আহমদ সহ বিভিন্ন পেশাজিবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close