এসিডদগ্ধ সুখী আক্তারের পাশে সুনামগঞ্জ ইয়ুথ ফোরাম সিলেটের নেতৃবৃন্দ

এসিড নিক্ষেকারী মানুষরুপী নরপিশাচদের বিরুদ্ধে দুর্বার সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলুন
—– লে: কর্নেল (অব.) আতাউর রহমান পীর

Sunamganj Youth Forum Sylhet Photo -10-10-15মদন মোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ লে: কর্নেল (অব.) আতাউর রহমান পীর বলেছেন, মানুষরুপী কিছু নরপিশাচদের কারনে সমাজ কলুষিত হতে পারে না। যারা সুনামগঞ্জ সরকারী কলেজের মেধাবী শিক্ষার্থী সুখী আক্তারের উপর এসিড নিক্ষেপ করেছে তারা জাতির শত্রু, মানুষ নামের কলংক। এইসব হায়েনাদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্ঠান্তমুলক শাস্থি নিশ্চিত করতে হবে। পাশাপাশি এসিড সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে দুর্বার সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে যুব সমাজকে অগ্রনী ভুমিকা পালন করতে হবে। এসিডদগ্ধ সুখী আক্তারের উপর এসিড নিক্ষেপকারী জানোয়ারকে গ্রেফতার ও দৃষ্ঠান্তমুলক শাস্থি নিশ্চিত করার দাবীতে সবাইকে স্বোচ্ছার হতে হবে। একই সাথে এসিডদগ্ধ সুখী আক্তারের সহযোগিতায় বিত্তবানসহ সকল প্রকার জনকল্যানমুলক সংগঠনকে এগিয়ে আসতে হবে।
তিনি গতকাল শনিবার সুনামগঞ্জ ইয়ুথ ফোরাম সিলেট-এর উদ্যোগে এসিডদগ্ধ গুরুতর আহত সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সুনামগঞ্জ সরকারী কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর মেধাবী শিক্ষার্থী সুখী আক্তারকে দেখতে গিয়ে ও আর্থিক সহযোগিতা প্রদান কালে উপরোক্ত কথা বলেন। এসময় তিনি সহ সুনামগঞ্জ ইয়ুথ ফোরাম সিলেট-এর নেতৃবৃন্দ ওসমানী হাসপাতালের ৬নং ওয়ার্ডের বার্ন ইউনিটস্থ ৮নং বেডে মৃত্যু যন্ত্রনায় কাতরানো সুখী আক্তারের শয্যাপাশে কিছু সময় কাটান এবং তার চিকিৎসার খোজ খবর নেন। সুনামগঞ্জ ইয়ুথ ফোরামকে এধরনের মানবকল্যানমুখী কাজে এগিয়ে আসার জন্য ধন্যবাদ জানান তিনি। পাশাপাশি সুখী আক্তারের পাশে দাড়ানোর জন্য সকল সংগঠন ও বিত্তবানদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। ফোরামের পক্ষ থেকে সুখী আক্তারের চিকিৎসার জন্য নগদ অর্থ তার বড় ভাই এমসি কলেজের শিক্ষার্থী ময়নুল হকের হাতে তুলে দেন ফোরামের প্রধান উপদেষ্ঠা অধ্যক্ষ আতাউর রহমান পীর সহ উপস্থিত নেতৃবৃন্দ।
এসময় উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ ইয়ুথ ফোরাম সিলেট এর তত্ত্বাবধায়ক নেছার আলম শামীম, ফোরামের সদস্য সচিব এমজেএইচ জামিল, পৃষ্ঠপোষক মিয়া মোহাম্মদ সোহেল, মানবাধিকার কর্মী মো: মিজানুর রহমান, ফোরামের যুগ্ম আহ্বায়ক ফুজায়েল আহমদ রানা, যুগ্ম আহ্বায়ক নাহিদ আহমেদ, যুুগ্ম আহ্বায়ক মাহদী হাসান সুমন প্রমুখ।
সুনামগঞ্জ ইয়ুথ ফোরাম নেতৃবৃন্দ বলেন, আমাদের বৃহত্তর সুনামগঞ্জ এলাকায় যারা এসব কর্মকান্ড করবে তাদের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাড়াতে হবে। আমাদের বোন সুখী আক্তারের উপর এসিড নিক্ষেপকারী নরপশুকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান তারা। অন্যথায় সুনামগঞ্জ ইয়ুথ ফোরাম সিলেটে অবস্থানরত সুনামগঞ্জের সর্বস্থরের জনতাকে সাথে নিয়ে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে বাধ্য হবে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close