রাজনকে হত্যাকারী নরপিশাচদের গ্রেফতার পুর্বক দৃষ্ঠান্তমুলক শাস্থি নিশ্চিত করুন : মহানগর বিএনপি

BNP Logoকুমারগাঁও বাস স্ট্যান্ড এলাকায় কতিপয় চিহ্নিত নরপিশাচ কর্তৃক ১৩ বছরের বালক সামিউল ইসলাম রাজনকে নৃশংসভাবে হত্যা ও হত্যাদৃশ্যের ভিডিও ধারনকারী সকল নরপশুদের গ্রেফতার পুর্বক দৃষ্টান্তমুলক শাস্থি নিশ্চিত করার দাবী জানিয়েছেন সিলেট মহানগর বিএনপির নেতৃবৃন্দ।
সোমবার এক যৌথ বিবৃতিতে নগর বিএনপি নেতৃবৃন্দ বলেন, ১৩ বছরের একটি বালককে চুরির অপবাদ দিয়ে এভাবে নৃশংসভাবে হত্যা কোন সুস্থ বিবেকবান মানুষ মেনে নিতে পারেনা। কয়েকমাস পুর্বে নগরীর রায়নগরস্থ দর্জিপাড়ায় জনৈক পুলিশ কর্মকর্তা ও ওলামালীগ নেতা কর্তৃক এক প্রাইমারী স্কুল ছাত্র সাঈদকে অপহরন করে হত্যার বিচার আজ পর্যন্ত না হওয়ায় এ ধরনের হত্যাকান্ড বেড়েই চলছে। সামিউল ইসলাম রাজনকে নৃশংসভাবে হত্যার দৃশ্য ভিডিওতে প্রচার করে খুনীরা প্রমান করেছে তাদের খুটির জোর কত শক্ত। একজনকে গ্রেফতার করা হলেও বাকীরা এখনও ধরা না পড়ায় খুনীরা পালিয়ে যেতে পারে। অবিলম্বে এই জঘন্য ঘটনার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্থি নিশ্চিত করুন। সরকার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনীকে বিরোধী রাজনৈতিক দল দমনের হাতিয়ার হিসেবে ব্যাবহারের ফলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটছে। এই অবস্থা চলতে দেয়া যায়না। রাজনকে হত্যার সময় খুনীদের পৈশাচিক উল্লাস সিলেটবাসীকে ক্ষুব্দ ও ব্যাতিত করেছে। এরা দেশের শত্রু সমাজের শত্রু। এদের কে আইনের আওতায় এনে দৃষ্ঠান্তমুলক শাস্থি ফাসী নিশ্চিত করতে সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান তারা।
বিবৃতি প্রদান করেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও মহানগর আহ্বায়ক ডা: শাহরিয়ার হোসেন চৌধুরী, নগর বিএনপির সদস্য সচিব বদরুজ্জামান সেলিম, সিলেট মহানগর বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক ও আহ্বায়ক কমিটির সদস্য নাসিম হোসাইন, নগর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য অধ্যাপক মকসুদ আলী, সাবেক সাধারন সম্পাদক ও আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকী, মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এডভোকেট নোমান মাহমুদ, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এডভোকেট হাবিবুর রহমান হাবিব, হুমায়ুন কবির শাহীন, আজমল বখত্ সাদেক, মিফতাহ সিদ্দীকি, সিটি কাউন্সিলার ফরহাদ চৌধুরী শামীম, ওমর আশরাফ ইমন, এমদাদ হোসেন চৌধুরী, সিটি কাউন্সিলার সৈয়দ মিসবাহ উদ্দিন, সিটি কাউন্সিলার সৈয়দ তৌফিকুল হাদী, সৈয়দ মঈনুদ্দিন সোহেল, মাহবুব চৌধুরী, মো: আলাউদ্দিন, ডা: নাজমুল ইসলাম, মুফতী নেহাল উদ্দিন, মুফতী বদরুন-নুর সায়েক, আব্দুস সাত্তার, সৈয়দ রেজাউল করিম আলো, মুকুল মোর্শেদ, আব্দুল জব্বার তুতু, এম এম রহিম, এডভোকেট ফয়জুর রহমান জাহেদ, আহমেদুস সামাদ ও এডভোকেট হাদিয়া চৌধুরী মুন্নি। বিজ্ঞপ্তি

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close