এবার সুনামগঞ্জে স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীর যৌতুক মামলা!

imagesসুরমা টাইমস ডেস্কঃ সুনামগঞ্জে যৌতুক দাবি করায় স্ত্রীর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন এক স্বামী। মঙ্গলবার সুনামগঞ্জের আমলগ্রহণকারী বিচারিক হাকিম আদালতে এই মামলাটি দায়ের করেছেন জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার নাজিরপুর গ্রামের ছামির আলী ওরফে শওকত।
মামলায় ছামির আলী তাঁর স্ত্রী আকলিমা শিকদার লুৎফাসহ শ্বশুরবাড়ির ছয়জনকে আসামি করেছেন। আদালত মামলাটি গ্রহণ করে আকলিমা শিকদারের বিরুদ্ধে সমন জারির আদেশ দিয়েছেন।
মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, ছামির আলীর সঙ্গে ২০১২ সালের ২৫ জানুয়ারি বিয়ে হয় সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার সওদেরগাঁও গ্রামের কমরু মিয়া শিকদারের মেয়ে আকলিমা শিকদার লুৎফার। তাঁদের দুই বছর বয়সী এক মেয়ে আছে।
আরজিতে ছামির আলী আরও উল্লেখ করেন, বিয়ের পর দাম্পত্য জীবন কিছুদিন ভালো যায়। এরপর আকলিমা শিকদার তাঁকে বাবা-মায়ের সংসার থেকে পৃথক হতে চাপ দেন। একই সঙ্গে সিলেট শহরে গিয়ে বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকতে বলেন। স্ত্রীর অব্যাহত চাপে তিনি বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন। স্ত্রীকে অনেক বোঝানোর পরও কোনো কাজ হয়নি। এক পর্যায়ে আকলিমাকে তাঁর বাবার বাড়ির লোকজন এসে নিয়ে যায়। তখন আকলিমা ১৫ ভরি স্বর্ণালংকারসহ কিছু মালপত্র সঙ্গে নিয়ে যান। এরপর অনেকবার চেষ্টা করেও তাঁকে ফিরিয়ে আনতে পারেননি তিনি।
গত ১৬ মে বিষয়টি মিটমাটের জন্য আকলিমাসহ তাঁর পরিবারের লোকজন ও এলাকাবাসী ছামির আলীর বাড়িতে বৈঠকে বসেন। ওই বৈঠকে আকলিমা সাফ জানিয়ে দেন তাঁকে দশ লাখ টাকা যৌতুক দিতে হবে এবং তাঁকে নিয়ে সিলেট শহরে বাসাভাড়া করে থাকতে হবে। অন্যথায় তিনি আর ছামির আলীর সঙ্গে সংসার করবেন না।
বাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাড. মো. শুকুর আলী জানান, বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আকলিমা শিকদারের বিরুদ্ধে সমন জারির আদেশ দিয়েছেন।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close