তিন সিটিতেই সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে : জাতিসংঘ মহাসচিবকে প্রধানমন্ত্রী

PM_Ban_ki_moonসুরমা টাইমস ডেস্কঃ বিএনপিকে নাশকতা, সন্ত্রাসের পথ ও জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ড পরিহার করে গণতন্ত্রের পথে ফিরে আসার পরামর্শ দেবেন জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন। তার কাছে এমন আশাবাদই ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতিসংঘ মহাসচিব শুক্রবার দুপুরে টেলিফোন করলে তার কাছে এ আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।
পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেসসচিব একেএম শামীম চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান, শুক্রবার বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টা ৪৮ মিনিটে ফোন কলটি আসে। এ সময় প্রায় ১৪ মিনিট কথা হয় জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মধ্যে।
সাম্প্রাতিক সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কিছু অনিয়ম হয়েছে বলে তাকে জানানো হয়েছে, জাতিসংঘ মহাসচিব এমন কথা উল্লেখ করলে তাকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানান, নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রাণহানি ছাড়া এই প্রথম কোনো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো।
নির্বাচনে জিতবে না বলে, নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতেই বিএনপি ভোট বর্জন করেছে বলেও জাতিসংঘ মহাসচিবকে জানান প্রধানমন্ত্রী।
শামীম চৌধুরী জানান, প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘ মহাসচিবকে বলেছেন, তিন ঘণ্টা পর বিএনপি নির্বাচন বর্জন করেও যে ভোট দলটির সমর্থিত প্রার্থীরা পেয়েছেন তাতে প্রশ্ন তোলার সুযোগ নেই।
বিএনপি-জামায়াতের আন্দোলনের নামে গত তিন মাসের সহিংসতার কথা তুলে ধরে জাতিসংঘ মহাসচিবকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাদের আন্দোলনের ডাকে জনগণ আসেনি, নেতাকর্মীরাও আন্দোলনে থাকেনি। একইভাবে নির্বাচনে অংশ নিয়েও নেতা-কর্মীদের মাঠে নামাতে পারেনি তার দল। নেতা-কর্মীদের পোলিং এজেন্ট বানিয়ে নির্বাচন কেন্দ্রেও পাঠাতে পারেনি তারা। কারণ তারা জনগণকে হত্যা করে আন্দোলন করেছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকার জনগণকে শান্তি ও নিরাপত্তা দিতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। একই সঙ্গে গণতন্ত্রের ধারা অব্যাহত রাখতে কাজ করে যাচ্ছে।
বিএনপিকে সন্ত্রাসের পথ থেকে ফেরাতে বান কি মুনের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধের প্রেক্ষিতে জাতিসংঘ মহাসচিব বলেছেন, এ বিষয়ে তারানকোকে বলা হয়েছে। গণতান্ত্রিক পথ সুগম করতে প্রয়োজনে আলোচনা করবেন তিনি।
বান কি মুন প্রধানমন্ত্রীর কাছে বাংলাদেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন, এমডিজি অর্জন, শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশের ভূমিকার প্রশংসা করেন। গণতন্ত্র সুসংহত করতে আওয়ামী লীগ সরকারের নিরলস কাজের জন্য ধন্যবাদ জানান। একই সঙ্গে তিনি স্পষ্টভাষায় সন্ত্রাস ও নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের নিন্দা জানান।
শামীম চৌধুরী জানান, জাতিসংঘ মহাসচিব প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে টেলিফোনালাপে বলেন, বিএনপি নির্বাচনে আসা স্বস্তিকর ছিল, কিন্তু মাঝপথে সরে যাওয়া দুঃখজনক। এজন্য উদ্বেগও প্রকাশ করেন তিনি।
প্রধানমন্ত্রী টেলিফোন করার জন্য জন্য বান কি মুনকে ধন্যবাদ জানান। বাংলাদেশের গণতন্ত্র প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখার ক্ষেত্রে বান কি মুনের অ‍ান্তরিকতার প্রশংসা করেন তিনি।
তিন সিটিতেই সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন হয়েছে বলেও জাতিসংঘ মহাসচিবকে জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, সাধারণ মানুষ সন্দরভাবে ভোট দিয়েছে। শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী দৃঢ় ভূমিকা পালন করেছে।
নির্বাচনে ৪৪ শতাংশ ভোট পড়েছে জানিয়ে জাতিসংঘ মহাসচিবকে প্রধানমন্ত্রীর বলেন, ভোটের সংখ্যা অস্বাভাবিক ছিল না। যে কারণে ভোট নিয়ে কোনো প্রশ্ন তোলোর অবকাশ নেই।
নির্বাচন কমিশনের কাছে ৫ শতাংশ অনিয়মের অভিযোগ এসেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই ৫ শতাংশ ভোট বাতিল করেই ফল ঘোষণা দেয় কমিশন।
বিএনপি অসৎ উদ্দেশে নির্বাচন থেকে সড়ে দাঁড়ায় উল্লেখ করে বান কি মুনকে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, গত তিন মাসের বেশি সময় ধরে বিএনপি যেভাবে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করেছে, জনজীবন ও জনসম্পদ নষ্ট করেছে তা জনগণ চায়নি। জনগণ তা মেনে নিতে পারেনি। এ কারণেই মানুষ বিএনপিকে ভোট দেয়নি। আর এটা বুঝতে পেরেই নির্বাচন শুরুর ৩ ঘণ্টার পরই বিএনপি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ায়।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close