রুবেলের বিরুদ্ধে হ্যাপীর মামলা প্রত্যাহার (ভিডিও)

Happy Rubelসুরমা টাইমস ডেস্কঃ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে স্মরণীয় এক জয়ে সবকিছুই যেন বদলে দিয়েছে। পুরো বাংলাদেশ এখনও উৎসবে মাতোয়ারা। এর মধ্যে জয়ের অন্যতম নায়ক রুবেল হোসেনকে সুখের এক বার্তা দিয়েছেন তারই সাবেক প্রেমিকা নাজনীন আখতার হ্যাপী। রুবেলের বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগে করা মামলা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন তিনি। বাংলাদেশি স্যাটেলাইট চ্যানেল ২৪কে এমনটিই জানিয়েছেন হ্যাপী। বিশ্বকাপের আগে থেকেই রুবেল-হ্যাপী বিষয় ছিল হটকেক। ধর্ষণের মামলায় রুবেল কয়েকদিন হাজতেও ছিলেন। তবে বিশ্বকাপ উপলক্ষে উচ্চ আদালত থেকে জামিন পান রুবেল। খেলতে চলে যান অস্ট্রেলিয়ায়।
সোমবার ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ১৫ রানে দারুণ এক জয় পায়। যে জয়ে স্বপ্নের কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে যায় টাইগার শিবির। এই জয়ে মুখ্য ভূমিকা পালন করেন পেসার রুবেল হোসেন। গুরুত্বপূর্ণ সময়ে তুলে নেন চারটি উইকেট। রুবেলের এমন সাফল্যে খুশি পুরো দেশ। এবার পুরোনো অভিমান ভেঙে রুবেলকে ক্ষমাও করে দিলেন সাবেক প্রেমিকা হ্যাপী। তুলে নিয়েছেন তার বিরুদ্ধে করা ধর্ষণ ও প্রতারণা মামলা। এক সাক্ষাৎকারে হ্যাপী জানান, ‘আমি তাকে (রুবেল) ক্ষমা করে দিয়েছি। তার বিরুদ্ধে করা মামলা আমি আর চালাবো না। কোনো স্বাক্ষ্য-প্রমাণ হাজির করার চেষ্টাও করবো না।’ এদিকে দলের জয়ে রুবেল বিশেষ ভূমিকা রাখায় চিত্রনায়িকা নাজনীন আকতার হ্যাপীর করা মামলা থেকে তার আইনজীবী কুমার দেবুল দে নাম প্রত্যাহার করে নেন। বাংলাদেশের জয়ের পরপরই ফেইসবুকে এক স্ট্যাটাসে দেবুল দে লিখেছিলেন, ‘বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকদের জ্ঞাতার্থে জানাচ্ছি যে, একজন পেশাজীবী হিসাবে হ্যাপীর পক্ষে মামলা পরিচালনার দায়িত্ব নিয়েছিলাম। বাংলাদেশের এহেন সফলতায় রুবেলের বিপক্ষে মামলায় লড়ার আমার আর ইচ্ছে নেই এবং তাই হ্যাপীর আইনজীবী হিসাবে এখুনি নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিলাম।’ তিনি আরো লিখেন, ‘এখন থেকে আমি আর হ্যাপীর আইনজীবী নই। শুভেচ্ছা বাংলাদেশ ক্রিকেট দল!!!!’ এ আইনজীবী জানান, ‘বাংলাদেশ দল ভালো খেলছে। ভালো খেলুক। রুবেল চাপমুক্ত থাকুক। তাকে চাপমুক্ত রাখতেই আমার এ সিদ্ধান্ত।’ এ স্ট্যাটাসের পর অনেক পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর হ্যাপী একটি স্ট্যাটাস দেন। যেখানে তিনি লিখেছেন- ‘একটা বিষয় ক্লিয়ার করি… সকাল থেকেই কিছু নিউজ দেখছি যে, আমার ল’ ইয়ার আর আমার পক্ষে লড়বে না। মজার বিষয় হলো আমি মামলা চালাবো না এটা আরো আগেই বলেছি। তারপর এসব কথা বলার গুরুত্ব কতটুকু? এটা আমার বোধগম্য না। নেক্সটটাইম মামলার বিষয় নিয়ে কোনো কথা বলতে চাই না। আমি যেহেতু মামলা চালাবো না, সেখানে মামলা নিয়ে সবার পেইন কেন???’

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close