আ’লীগ-বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষে সুনামগঞ্জ রণক্ষেত্র (ভিডিও)

sunamgonj bnp-aleageসুরমা টাইমস ডেস্কঃ সুনামগঞ্জে আওয়ামী লীগ-বিএনপি এবং পুলিশ-আ’লীগ-ছাত্রদলের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে শহর রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। সোমবার দুপুর ১২টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত ডিএস রোড, ট্রাফিক পয়েন্ট, কালীবাড়ি ও পুরাতন বাসস্টেশন এলাকায় থেমে থেমে এসব সংঘর্ষ চলে। সংঘর্ষে ছাত্রদল আহবায়ক, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা, পুলিশের ওসি ও সাংবাদিকসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে অন্তত ২০ ছাত্রদল নেতাকর্মী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে দলের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ অন্তত ২ শতাধিক রাউন্ড টিয়ারসেল, রাবার বুলেট ও শর্ট গানের গুলি ছুঁড়ে। দফায় দফায় সংঘর্ষ চলাকালে শহরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে বন্ধ হয়ে যায় দোকান পাট।
জানা যায়- দুপুর ১২টার দিকে উকিল পাড়া থেকে বিএনপি একটি মিছিল নিয়ে ট্রাফিক পয়েন্টের দিকে অগ্রসর হওয়ার চেষ্টা করলে আওয়ামী লীগ মিছিলে হামলা চালায়। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া শুরু হয়। এ সময় পুলিশ টিয়াসেল, রাবার বুলেট ছুঁড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।
দুপুর ১টার দিকে পুরাতন বাসস্টেশন থেকে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা অপর একটি মিছিল নিয়ে ট্রাফিক পয়েন্টের দিকে অগ্রসর হওয়ার চেষ্টা করলে কালিবাড়ী এসে পুলিশী বাধার মুখে পড়ে। পুলিশী বাধা অতিক্রম করে ছাত্রদল মিছিল নিয়ে সামনের দিকে অগ্রসর হওয়ার চেষ্টা করলে আওয়ামী লীগ ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ অন্তত দেড় শতাধিক রাউন্ড টিয়াসেল, রাবার বুলেট ও শর্ট গানের গুলি ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
সংঘর্ষের পর থেকে শহরের থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশ টহল জোরদার করেছে।
সুনামগঞ্জ সদর থানার ওসি মকবুল হোসেন মোল্লা জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ টিয়ারসেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close