নিখোঁজ ছাত্রদল নেতা দিনারের সন্ধান দাবীতে কোর্ট পয়েন্টে অবস্থান কর্মসুচী

দিনারকে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দাও, গুম ও খুনের অপরাজনীতির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হোন
————দিলদার হোসেন সেলিম

ChatroDol Neta Dinar Sondan Programme Photo-02-10-14 (1)সিলেট জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম বলেছেন, রাজনীতি তো মানুষেরই কল্যানের জন্যই। কিন্তু এই রাজনীতির কারনে গুম হতে হবে কেন? প্রকাশ্য দিবালোকে একজন যুবককে গুম করার ৩০ মাস পেরিয়ে গেলেও আজ পর্যন্ত ছাত্রনেতা দিনারকে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিতে পারেনি প্রশাসন। পারবেই বা কেমন করে ক্ষমতাসীন গোষ্ঠীর নির্দেশেই তো দেশে সকল গুম ও খুন সম্পন্ন হয়েছে। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে আদর্শিক মোকাবেলায় ব্যার্থ হয়েই ক্ষমতাসিন অবৈধ আওয়ামী সরকার বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করতেই গুম ও খুনের প্রতিহিংসার রাজনীতি শুরু করেছে। আওয়ামী গুম, খুন ও গ্রেফতার নির্যাতনের অপরাজনীতির বিরুদ্ধে সর্বত্র গণ-আন্দোলন শুরু করতে হবে।
তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার নিখোঁজ সিলেট ছাত্রদল নেতা ইফতেখার আহমদ দিনারের সন্ধানের দাবীতে দিনারের পরিবারবর্গ ও আত্মীয় স্বজন-এর উদ্যোগে নগরীর কোর্ট পয়েন্টে অনুষ্ঠিত অবস্থান কর্মসুচীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। দিনারের বড় মামা এহতেশামুল হক বাহার এর সভাপতিত্বে ছোট মামা এহসানুল হক তাহের ও ভগ্নিপতি শামীম আহমদ-এর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত অবস্থান কর্মসুচীতে দিনারে পরিবারের হৃদয়গ্রাহী বক্তব্যে উপস্থিত সবাই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। এ সময় পুরো কোর্ট পয়েন্ট জুড়ে নিরবতা নেমে আসার পাশাপাশি সেখানে হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারনা হয়। বেলা ১১টা থেকে শুরু হওয়া অবস্থান কর্মসুচীতে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি অঙ্গসংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। ইফতেখার আহমদ দিনারকে অবিলম্বে অক্ষত অবস্থায় ফিরিয়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়ে দিনারের পরিবার ও আত্মীয়স্বজন বলেন, আমরা আর কোন মায়ের সন্তানকে গুম করার দৃশ্য দেখতে চাই না। গুম নামক প্রতিহিংসা ও ধ্বংসের নোংরা রাজনীতি বন্ধ করুন। সিলেট জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আলী আহমদের স্বাগত বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে সুচীত অনুষ্ঠানে দিনার পরিবার থেকে বক্তব্য রাখেন, দিনারের বাবা ডা: মঈন উদ্দিন আহমদ, বোন তাহসিন শারমিন তামান্না, ভাই ইসহাক আহমদ ও ইসমাম আহমদ, চাচাতো ভাই এবাদুল করিম লিয়াকত, দিদার হোসেন রুবেল, ভগ্নিপতি শামসুল ইসলাম, খালাতো ভাই আশরাফুল কবির, মামা আবু সাঈদ চৌধুরী জুবায়ের।
বিএনপি অঙ্গসংগঠন থেকে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, সিলেট মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি তারেক আহমদ চৌধুরী, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, বালাগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি কামরুল হুদা জায়গীরদার, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা দলের আহ্বায়ক সালেহ আহমদ খসরু, যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা মুজিবুর রহমান মুজিব, শিক্ষক নেতা অধ্যাপক ফরিদ আহমদ, বিএনপি নেতা এডভোকেট ফখরুল হক, মাহবুবুর রহমান চৌধুরী, জেলা মহিলা দলের সভানেত্রী পাপিয়া চৌধুরী।
এছাড়াও বিএনপি-যুবদল ও ছাত্রদলের মধ্য থেকে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, মামুনুর রশীদ মামুন, খিজির হোসেন এনু, প্রাণেশ দে, লায়েক আহমদ, ফয়সল আহমদ, শাহ রুমেল, বোরহান উদ্দিন, শাহেদ বখত্, নজরুল ইসলাম, অজুন ঘোষ, আলাউদ্দিন আলাই, শাহ মাহমুদ আলী, মিজানুর রহমান নেছার, এখলাছুর রহমান মুন্না, জাহেদ আহমদ তালুকদার, কল্লোলজ্যোতি বিশ্বাস জয়, কামাল হোসেন লিলু, সোনাহর আলী সুহেল,সাইফুল ইসলাম, আব্দুর রউফ, আল মামুন মোবারক হোসেন তুহিন, সোহেল ইবনে রাজা, ওবায়দুর রহমান ফাহমি,ইকবাল আহমদ মাসুম, আরিফুর রহমান টিপু, রুম্মান আহমদ, আল-আমিন,হারুনুর রশীদ ফখরুল আলম, শামীমুর রহমান শামীম, মোক্তাদির আহমদ,সুমন আহমদ বিপ্লব, ফজলু মিয়া, শফিক মিয়া, হিরা মিয়া, মাসুম পারভেজ, জুবায়ের আহমদ লিলু, আলাউর রহমান রুমন, বেলাল চৌধুরী, শহিদুল ইসলাম, সিলেট কল্যান সংস্থার পক্ষে- আজিজুর রহমান আজিজ, হাসান তালুকদার সোহেল, একে কামাল হোসেন, সাদিকুর রহমান, ফজলুল করীম, মিনহাজ তালেব প্রমুখ।
বিএনপি নেতৃবৃন্দ বলেন, আওয়ামী বাকশালীরা শুধু মেধাবী ছাত্রদল নেতা ইফতেখার আহমদ দিনারকে গুম করে নি। গুম করেছে সিলেটের কোটি জনতার হৃদয়ের স্পন্দন জননেতা ইলিয়াস আলীকে। সারাদেশে বিরোধী রাজনৈতিক দলের শতশত নেতাকর্মীকে গুম খুন করা হয়েছে। খুন করে যেখানে সেখানে লাশ ফেলে দেয়া হয়েছে। আওয়ামীলীগের গুম-খুনের অপরাজনীতি থেকে তাদের নিজ দলের নেতাকর্মীরাও রেহাই পাচ্ছেন না। দেশের মানুষ দেখেছে নিজদলের নেতাদের নির্দেশে নারায়নগঞ্জে কিভাবে সরকার দলের গুরুত্বপুর্ন নেতাদের গুম করে হত্যা করা হয়েছে। এভাবে কোন দেশ চলতে পারে না। আওয়ামী খুন ও গুমের অপরাজনীতির বিরুদ্ধে দুর্বার প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। দেশের মানুষ আর কোন ইলিয়াস আলী কিংবা দিনারকে গুম দেখতে চায়না। অবিলম্বে জননেতা ইলিয়াস আলী ও ইফতেখার আহমদ দিনার সহ গুম হওয়া সকল নেতাকর্মীদেরকে তাদেও পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিন। বিজ্ঞপ্তি

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close