আইএসএসে প্রথম রুশ নারী (ভিডিও)

tereskovaসুরমা টাইমস ডেস্কঃ রুশ নারী ভ্যালেনতিনা তেরেসকোভা ছিলেন পৃথিবীর প্রথম নারী মহাকাশচারী। এর পর আরও তিন রুশ নারী মহাশূন্য জয় করেছেন। কিন্তু ইন্টারন্যাশনাল স্পেস স্টেশনের (আইএসএস) ১৭ বছরের ইতিহাসে আর কোনো নারীকে মহাশূন্যে পাঠায়নি দেশটি।
সেই নীরবতা ভাঙলেন এলেনা সেরোভা। প্রথম রুশ নারী হিসেবে আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রে পা রেখেছেন তিনি।
শুক্রবার কাজাখস্তান থেকে সয়্যুজ মহাশূন্যযানে করে যাত্রা করেন সেরোভা। ছয় ঘণ্টা পর আইএসএসে পৌঁছে যান তিনি। তার সঙ্গে এই যাত্রায় আছেন দুই পুরুষ সহচারী। একজন নিজ দেশের নভোচারী, আরেকজন মার্কিন নভোচারী।
এ পর্যন্ত চার রুশ নারী মহাশূন্য জয় করলেন। আর আইএসএসে প্রথম পা রাখলেন সেরোভা।
আইএসএসে যোগ দেওয়ার আগে সাত বছরের প্রশিক্ষণ নিয়েছেন সেরোভা। আগামী ছয় মাস তিনি আইএসএসে অবস্থান করবেন।
সেরোভা পেশায় প্রকৌশলী। বয়স ৩৮ বছর। এক সন্তানের জননী। তার মেয়ের বয়স ১১ বছর।
আগামী ছয় মাস মাকে পাবে না সেরোভার একমাত্র মেয়ে। এ নিয়ে কিছুটা মন খারাপ সেরোভার। কিন্তু জাতীয় দায়িত্ব পালনেই মূল মনোযোগ ধরে রাখবেন বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।
উড়ে যাওয়ার আগে সেরোভা বলেন, ‘আইএসএসের পানে উড়ে যাওয়া প্রথম রুশ নারী হব আমি। এটা আমার জন্য একটা গুরুভার। যারা শিখিয়েছেন, প্রশিক্ষণ দিয়েছেন- আমি তাদের বলতে চাই, আপনাদের গৌরবের আসনেই রাখব।’
একঝলক : আইএসএস
ইন্টারন্যাশনাল স্পেশ স্টেশন (আইএসএস) হলো একটি কৃত্রিম উপগ্রহ। আন্তর্জাতিক এই মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রটি ভূপৃষ্ঠ থেকে ৩৩০ কিলোমিটার ‍উপর দিয়ে ঘোরে। কক্ষপথে এর গতি সেকেন্ডে ৭.৭১ কিলোমিটার।
চিরবৈরী হওয়া সত্ত্বেও যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া যৌথভাবে এই কৃত্রিম উপগ্রহের মালিক। ১৯৯৮ সালের ২০ নভেম্বর উৎক্ষেপণ করা হয় আইএসএস।
একনজর : রুশ নারী নভোচারী
মহাকাশ জয়ে রাশিয়াই অগ্রদূত। পৃথিবীর প্রথম মহাকাশচারী (১৯৬১) ইউরি গ্যাগারিন ছিলেন রুশ নভোচারী। এর দুই বছরের মাথায় পৃথিবীর প্রথম নারী নভোচারী হিসেবে মহাশূন্য জয় করেন রুশ নারী ভ্যালেনতিনা তেরেসকোভা। এ পর্যন্ত রাশিয়ার চারজন নারী মহাশূন্য জয় করেছেন।
Serova১। ভ্যালেনতিনা তেরেসকোভা : ১৯৬৩ সালের ৬ জুন ইতিহাস গড়েন তেরেসকোভা। ফ্যাক্টরির সামান্য একজন কর্মী ছিলেন তিনি। কিন্তু দৃঢ় মনোবল তাকে নিয়ে গিয়েছিল মহাশূন্যে। তার আগে পৃথিবীর কোনো নারী মহাশূন্যে যেতে পারেননি। যে মহাকাশযানের সওয়ারি হয়েছিলেন তেরেসকোভা, তার নাম ছিল ভস্টক-৬।
ভ্যালেনতিনা তেরেসকোভার জন্ম ১৯৩৭ সালের ৬ মার্চ।
২। সেতলানা সাভিৎসকায়া : মহাশূন্যে দ্বিতীয় নারী হিসেবে ভ্রমণ করেন সেতলানা। কিন্তু তার ঝুলিতে আছে প্রথম হওয়ার দু-দুটো রেকর্ড।
এক. তিনিই প্রথম নারী নভোচারী, যিনি মহাশূন্যে হেঁটেছেন। ১৯৮২ সালের ১৯ আগস্ট সয়্যুজ টি-৭ মহাকাশযানে চড়ে স্পেস স্টেশন সয়্যুজে যাত্রা করেন তিনি।
দুই. মহাশূন্যে দু’বার ভ্রমণকারী নারী নভোচারীদের মধ্যে সেতলানাই প্রথম। তিনি দ্বিতীয় দফায় মহাশূন্যযাত্রা করেন ১৯৮৪ সালের ১৭ জুলাই, সয়্যুজ টি-১২ মহাকাশযানে চড়ে।
সেতলানার জন্ম ১৯৪৮ সালের ৮ আগস্ট।
৩। এলেনা কোনডাকোভা : তৃতীয় রুশ নারী নভোচারী হিসেবে মহাশূন্য জয় করেন কোনডাকোভা। ১৯৯৪ সালের ৩ অক্টোবর সয়্যুজ টিএম-২০ মহাকাশযানে চড়ে মহাকাশ ভ্রমণ করেন তিনি। তিনিই প্রথম রুশ নারী, যিনি মার্কিন মহাকাশযানে ভ্রমণ করেন। ১৯৯৭ সালের ১৫ মে আটলান্টিসে চড়ে তিনি মির স্পেস স্টেশনে যাত্রা করেন।
কোনডাকোভার জন্ম ১৯৫৭ সালের ৩০ মার্চ।
৪। এলেনা সেরোভা : প্রথম রুশ নারী হিসেবে ২০১৪ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর আইএসএসে পা রেখেছেন সেরোভা। সয়্যুজ টিএম-১৪ মহাকাশযানে চড়ে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে পৌঁছান তিনি।
সেরোভার জন্ম ১৯৭৬ সালের ২২ এপ্রিল।
সূত্র : বিবিসি, নাসা ও স্পেস ডটকম

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close