দক্ষিণ সুরমা উপজেলা কামাল বাজার ইউপি বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন

অবৈধ সরকারের হাত থেকে গনতন্ত্র পুনরুদ্ধারে তৃনমুল নেতাকর্মীদেরকে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে
—আলহাজ্ব শফি আহমদ চৌধুরী

বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাবেক এমপি আলহাজ্ব শফি আহমদ চৌধুরী বলেছেন, আওয়ামী স্বৈরাচারী সরকার গনতন্ত্রে বিশ্বাস করেনা। তারা ভিন্নপথে ক্ষমতায় গিয়ে জনগণের ভোটাধিকার হরন করে, গণতন্ত্রকে গলাটিপে হত্যা করে। ৫ই জানুয়ারীর প্রহসনের নির্বাচনে জনগন তাদের ভোট না দিয়ে ঘৃনাভরে প্রত্যাখ্যান করায় অবৈধ সরকার একের পর এক গণবিরোধী আইন পাস করে তাদের অবৈধ ক্ষমতার মসনদ দীর্ঘায়িত করার সুদুরপ্রসারি ষড়যন্ত্র করছে। সরকারের সকল অপশাসন রুখে দাড়াতে দেশবাসীর আশা আকাঙ্খার প্রতীক ৩ বারের সফল প্রধানমন্ত্রী আপোষহীন জননেত্রী গনতন্ত্রের অতন্দ্র প্রহরী বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারুন্যের অহংকার বাংলাদেশের আগামীর রাষ্ট্রনায়ক তারেক রহমানের ডাকে তৃনমুল বিএনপি অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদেরকে অগ্রনী ভুমিকা পালন করতে হবে। তৃনমুল নেতাকর্মীদের দুর্বার প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তোলার মাধ্যমে অবৈধ সরকারের হাত থেকে গনতন্ত্র পুনরুদ্ধার করা হবে।
তিনি গতকাল সিলেট জেলার দক্ষিন সুরমা উপজেলার ১০নং কামাল বাজার ইউনিয়ন বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুস ছালাম এর সভাপতিত্বে, ইউনিয়ন বিএনপি নেতা আমিরুল ইসলাম সারো ও ছাত্রদল নেতা মাসুম পারভেজ-এর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপির যগ্ম আহ্বায়ক এডভোকেট আব্দুল গাফ্ফার, জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মখন মিয়া চেয়ারম্যান, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আলী আহমদ, দক্ষিণ সুরমা বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক তাজরুল ইসলাম তাজুল, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম আহমদ, উপজেলা বিএনপি নেতা হাজী শাহাবুদ্দিন আহমদ, শাহ মাহমুদ আলী, মহানগর ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক নুরুল আলম সিদ্দিকী খালেদ, বিএনপি নেতা হাজী কনা মিয়া, মকসুদ আহমদ, মাসুম আলম, বজলুর রহমান, বজলুর রহমান ফয়েজ, আব্দুর রহিম, আব্দুল আহাদ, আব্দুল লতিফ, কামাল হোসেন লিলু, লাল মিয়া, হাজী গোলজার আহমদ, বশির মিয়া, সেলিম মিয়া, আব্দুল মন্নান, মিজান মিয়া, নুরুদ্দিন, আজাদ আহমদ, হাজী আসাদ মিয়া, হাজী মকন মিয়া, ইউসুফ মিয়া, হাজী কালা মিয়া, মাসুক মিয়া, হাজী বশির মিয়া, আব্দুল বাছির, কাজল মিয়া, আব্দুল ওয়াহাব, হাজী চান মিয়া, আব্দুল আহাদ, আব্দুল মালিক, শাহাবুদ্দিন, শফিক মিয়া শুকুর, আমরুছ আলী, ছমছু মিয়া, মোবারক আলী, সোহেল মিয়া, মো: শাহজাহান, আব্বাস উদ্দিন, সাজ্জাদ আলী, লিলু মিয়া, মতছির আলী, সোনা মিয়া, জুয়েল আহমদ, আনসার আহমদ, রুবেল মিয়া, ছাত্রদল নেতা বুরহান উদ্দিন, নজরুল ইসলাম, কামাল হোসেন লিলু, সোনাহর আলী সোহেল, ফখরুল ইসলাম রুমেল, মোবারক হোসেন তুহিন, সোহেল ইবনে রাজা, এনামুল হক ও এমএ মান্নান প্রমুখ।
সম্মেলন শেষে তৃনমুল নেতাকর্মীদের গোপন ব্যালটের মাধ্যমে কামাল বাজার ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি পদে আব্দুস ছালাম, সাধারন সম্পাদক পদে আব্দুল মান্নান ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আজাদ মিয়া নির্বাচিত হন। নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দ পরবর্তীতে সবার মতামতের ভিত্তিতে ইউনিয়ন বিএনপির পুর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করবেন।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close